Pre-loader logo

যত রেকর্ড শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের ও বসুন্ধরা কিংসের

যত রেকর্ড শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের ও বসুন্ধরা কিংসের

শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র

পাইনিয়ার থেকে প্রথম বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র ২০০৪ সালে প্রিমিয়ার লিগে উত্তীর্ণ হয়। অভিষেক আসরেই তারা রানার্সআপ হয়। পেশাদার লিগ থেকেই ক্লাব তারকানির্ভর দল গড়তে থাকে। ২০১২-১৩ মৌসুমে প্রথম বারের মতো লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়। সে সঙ্গে ফেডারেশন কাপ ও স্বাধীনতা কাপে চ্যাম্পিয়ন হলে মোহামেডানের ট্রেবল শিরোপার রেকর্ড স্পর্শ করে। শেখ রাসেলই প্রথম ক্লাব পেশাদার লিগে পেশাদারিত্বে শর্ত মেনে মাঠে নামছে। বিশেষ করে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পাওয়ার পর ক্লাবে আমূল পরিবর্তন আসে। যা বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে স্বপ্নই বলা যায়। ফুটবলের পাশাপাশি টেবিল টেনিসেও সফল দল শেখ রাসেল।

বসুন্ধরা কিংস

নতুন দল। অথচ অসম্ভবকে সম্ভব করেছে বসুন্ধরা গ্রুপের বসুন্ধরা কিংস। চ্যাম্পিয়ন্সশিপ লিগে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ২০১৯ সালে পেশাদার লিগে অভিষেক হয় কিংসের। শুরুতেই শিরোপা জিতে ঘরোয়া ফুটবলে নতুন ইতিহাস গড়ে বসুন্ধরা কিংস। একই মৌসুমে স্বাধীনতা কাপে চ্যাম্পিয়ন ও ফেডারেশন কাপে রানার্সআপ। নতুন দল হিসেবে এ রেকর্ড বাংলাদেশ কেন পূর্ব পাকিস্তান আমলেও কারোর নেই। আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টেও কিংসের শুরুটা হয়েছে দারুণ। এএফসি ক্লাব কাপে উদ্বোধনী ম্যাচেই বার্কোসের হ্যাটট্রিকে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে মালদ্বীপ সেরা টিসি স্পোর্টসকে। কিংসও পেশাদার লিগে সব পেশাদারিত্ব মেনেই মাঠে নামছে।

Copyright © 2021 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.