Pre-loader logo

বারিধারাকে উড়িয়ে দিয়ে কিংসের শুরু

বারিধারাকে উড়িয়ে দিয়ে কিংসের শুরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রথম লেগের চেয়েও তারা দুরন্ত! উত্তর বারিধারার জালে গোলের মহড়া দিয়ে বসুন্ধরা কিংস ৬-০ গোলে জিতে শুরু করেছে ফিরতি লেগ। এটা লিগে চ্যাম্পিয়নদের সবচেয়ে বড় জয় এবং দলের চ্যাম্পিয়ন ফরোয়ার্ডরাই এর কারিগর। দুটি করে গোল করে বেসেরা, রোবিনহো ও জোনাথন সবাই রেখেছেন সমান অবদান। এএফসি কাপের আগে ম্যাচ প্র্যাকটিসে তাঁদের গোল প্র্যাকটিসও হয়েছে চমৎকার!

এএফসি কাপ উপলক্ষে চ্যাম্পিয়নদের যে কঠোর প্রস্তুতি তারই ফল পেয়েছে তারা ফিরতি লেগের প্রথম ম্যাচে। বেড়েছে তাদের বোঝাপড়া, নিখুঁত হয়েছে ফিনিশিং। এমনকি দুই নিয়মিত ফুলব্যাক রিমন ও বিশ্বনাথের অনুপস্থিতিও ভোগায়নি তাদের। দুই ইনজুরড ডিফেন্ডারের জায়গায় খেলেছেন তারিক কাজী ও সুশান্ত ত্রিপুরা। নতুন ডিফেন্ডার নিয়েও শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত চ্যাম্পিয়নরা খেলে গেছে একই গতিতে।

৩ মিনিটে বসুন্ধরা কিংস লিড নেয় রাউল অস্কার বেসেরার গোলে। ইরানি ডিফেন্ডার খালিদ শাফির লম্বা থ্রো-ইনে আর্জেন্টাইনের হেড পৌঁছে যায় বারিধারার জালে। এরপর দুই ব্রাজিলিয়ানের যুগলবন্দিতে আরো দুটি চমৎকার গোলের জন্ম হয়। ১১ মিনিটে রোবিনহো বক্সে ঢুকে দারুণ বানিয়ে দেন জোনাথন ফার্নান্দেজকে, তাতে ব্যবধান বেড়ে হয় ২-০। ৩৪ মিনিটে জোনাথন মাঝমাঠ থেকে দ্রুত গতিতে ঢুকে রবসন রোবিনহোর পায়ে দিলে ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় বসুন্ধরা কিংস। আসলে তাঁদের আটকে রাখার সামর্থ্য নেই উত্তর বারিধার রক্ষণভাগের। তাই ৪৫ মিনিটেই হয়ে যায় ম্যাচের ভাগ্যলিখন।

বিরতির পর আবার তাঁরা সেই গতিতে শুরু করে ৫৫ মিনিটে চতুর্থ গোল আদায় করে নেন। বারিধার গোলরক্ষকের ব্যর্থতাও একটা কারণ, বদলি গোলরক্ষক জসীম উদ্দিনের গ্রিপ ফসকে জালে পৌঁছে যায় জোনাথনের শট। এই গোলে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডারের জোড়া গোল সম্পন্ন হয়। এরপর অবশ্য একটি গোল ফিরিয়ে দেওয়ার দারুণ সুযোগ এলেও বারিধারা পারেনি। সুজন কিংস গোলরক্ষক আনিসুর রহমানকে পরাস্ত করেও পারেননি বল জালে পাঠাতে। গোললাইনের আগেই ব্লক করেন তপু বর্মণ। ৬৩ মিনিটে ইব্রাহিমের বাড়ানো বলে অস্কার বেসেরা নিজের দ্বিতীয় গোল করেন। জোড়া গোলে এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের গোলসংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৩। ছুঁয়ে ফেলেন লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা রবসন রোবিনহোকে। কিন্তু এই ব্রাজিলিয়ানও যে বসে থাকার পাত্র নন। ইনজুরি টাইমে সুশান্ত দ্রুত গতিতে বারিধারার বক্সে ঢুকে পড়লে অনীক তাঁকে ফাউল করে পেনাল্টির বিপদ ডেকে আনেন। সেই পেনাল্টি গোলে রবসন রোবিনহো চতুর্দশ গোল করে আবার শীর্ষে পৌঁছে যান গোলদাতার তালিকায়। ১৩ খেলায় ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে তাঁর দল বসুন্ধরা কিংসও।

Source: Kaler Kantho

Copyright © 2021 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.