Pre-loader logo

বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের জন্য মোনাজাত

বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের জন্য মোনাজাত

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর বসুন্ধরা সিটিতে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের জন্য মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করেছে দেশের অন্যতম শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। গতকাল শনিবার ওই মোনাজাতে জাতির জনক ও তাঁর পরিবারের সদস্য যাঁরা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকের বুলেটে শহীদ হয়েছেন, তাঁদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের ঊর্ধ্বতন উপদেষ্টা (কারিগরি) টি আই এম লতিফুল হোসেন, ঊর্ধ্বতন নির্বাহী পরিচালক (হিসাব) শেখ আব্দুল আলিম, ঊর্ধ্বতন নির্বাহী পরিচালক লিয়াকত হোসেন, মেজর (অব.) মোস্তফা রাহেল ইমাম, বসুন্ধরা সিটি দোকান মালিক সমিতির সভাপতি এ কে এম হান্নান আজাদ, সমিতির ঊর্ধ্বতন সহসভাপতি গোলাম মাওলাসহ বসুন্ধরা সিটির দোকান মালিক সমিতির সদস্য ও সাধারণ মুসল্লিরা।
মোনাজাতের আগে জাতীয় শোক দিবসের স্মরণসভায় লতিফুল হোসেন বলেন, ‘আজ আমরা যে স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অসীম অবদান। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে একটি ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করেছেন। আমরা যদি আজ সৎ ও দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গঠন করতে না পারি তাহলে তাঁর আত্মা শান্তি পাবে না। তাই আমাদের সবাইকে জাতির জনকের সেই আদর্শ ধারণ করে জীবনযাপন করতে হবে। ব্যক্তিগত জীবনে আমাদেরকে তাঁর আদর্শ ধারণ করতে হবে।’
বসুন্ধরা সিটি দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হান্নান আজাদ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ স্বাধীন না করলে আমরা হয়তো আজ বসুন্ধরা সিটির মতো এমন একটি বিশাল ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পেতাম না। বসুন্ধরা সিটিতে তিন হাজার দোকান এবং এর সঙ্গে প্রায় ৩০ হাজার লোকের জীবন-জীবিকা জড়িত। আজকে আমরা তাঁর শাহাদাতবার্ষিকীতে তাঁর পরিবারের সদস্যদের শান্তি কামনা করছি।’ তিনি সবার কাছে বঙ্গবন্ধুর আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া চান।

Copyright © 2021 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.