Pre-loader logo

দেশের সর্ববৃহৎ সিমেন্ট প্রকল্পে সাত ব্যাংকের যৌথ অর্থায়ন

দেশের সর্ববৃহৎ সিমেন্ট প্রকল্পে সাত ব্যাংকের যৌথ অর্থায়ন

নারায়ণগঞ্জের মদনগঞ্জে বসুন্ধরা গ্রুপ দেশের সর্ববৃহৎ সিমেন্ট কারখানা নির্মাণ করতে যাচ্ছে। সিমেন্ট কারখানাটি চালু হলে তিন হাজার লোকের প্রত্যক্ষ ও ১২ হাজার লোকের পরোক্ষ কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। এ প্রকল্পে সাতটি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান মোট ১২০ কোটি টাকা যৌথ অর্থায়ন (সিন্ডিকেশন লোন) করবে। গত মঙ্গলবার রাতে নগরীর ওয়েস্টিন হোটেলে বসুন্ধরা গ্রুপের সঙ্গে এসব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এ সম্পর্কিত একটি চুক্তি সই হয়েছে। ১০ লাখ মেট্রিকটন উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন এই সিমেন্ট কারখানাটিতে ব্যাংক এশিয়া ২০ কোটি, যমুনা ব্যাংক ২০ কোটি, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক ১০ কোটি, আইএফআইসি ব্যাংক ২০ কোটি, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক ২৫ কোটি, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক ১০ কোটি, বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক আট কোটি এবং সৌদি-বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড এগ্রিকালচারাল ইনভেস্টমেন্ট কম্পানি (সাবিনকো) আট কোটি টাকা অর্থায়ন করবে। ব্যাংক এশিয়া এই যৌথ অর্থায়নে লিড এরেঞ্জার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে। গ্রাহকদের অব্যাহত আস্থা ও বিশ্বাস বসুন্ধরা শিল্পগোষ্ঠীর অগ্রযাত্রায় সহায়তা করেছে উল্লেখ করে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান বলেন, ‘বর্তমান সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ ও বিরোধী দলের সহায়তায় বর্তমানে দেশে ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।’ এ পরিবেশ বজায় রাখতে তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। আইএফআইসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোশাররফ হোসেন বলেন, আহমেদ আকবর সোবহান দেশের শিল্পোন্নয়নের পাশাপাশি প্রচুর লোকের কর্মসংস্থানে ব্যাপক ভূমিকা রাখছেন। তাঁর প্রতিষ্ঠান কখনোই অঙ্গীকার থেকে বিচ্যুত হয়নি এবং ওয়ান-ইলেভেনের মতো ব্যবসায়িক দুঃসময়েও তাদের ঋণ সময়মতো পরিশোধ করেছে। তাই আইএফআইসি বসুন্ধরা গ্রুপের সঙ্গে সব সময়ই দেশের শিল্পায়নে ও অগ্রযাত্রায় সহযাত্রী হবে। স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এ ফারুকী বলেন, ‘আহমেদ আকবর সোবহান একজন প্রকৃত ব্যবসায়ী। তাঁর মতো একজন ব্যবসায়ীর সঙ্গে ব্যবসার সুযোগ পেয়ে আমরা নিজেদের ভাগ্যবান মনে করছি। অনুষ্ঠানে বসুন্ধরা গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকাণ্ডসহ বিস্তারিত উপস্থাপন করেন প্রতিষ্ঠানটির এএমডি সাফওয়ান সোবহান। এ সময় কালের কণ্ঠের সম্পাদক আবেদ খান, ব্যাংক এশিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইরফানউদ্দিনসহ অর্থায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বসুন্ধরার ঊর্ধ্বতন উপব্যবস্থাপক বেলায়েত হোসেন, উপদেষ্টা (তথ্য ও গণমাধ্যম) মোহাম্মদ আবু তৈয়ব, নির্বাহী পরিচালক মো. ফখরুদ্দিন, মহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্যিক) শওকত আকবরসহ প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Copyright © 2021 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.