Pre-loader logo

ঢাকায় সোনার অলংকার প্রদর্শনী শুরু

ঢাকায় সোনার অলংকার প্রদর্শনী শুরু

দেশে প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে সোনার অলংকার প্রদর্শনী (জুয়েলারি এক্সপো)। রাজধানীর পূর্বাচলে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনব্যাপী এই প্রদর্শনীতে ৬০টির মতো স্টল রয়েছে। দেশ থেকে সোনা ও সোনার অলংকার রপ্তানির প্রসারে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক ইমদাদুল হক মিলন বৃহস্পতিবার দুপুরে এই সোনার অলংকার প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা, সহসভাপতি গুলজার আহমেদ, দেওয়ান আমিনুল ইসলাম শাহীন, আনোয়ার হোসেন, সাবেক সভাপতি দিলীপ কুমার রায়, এনামুল হক খান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে সারা দেশে অলংকার শিল্পের সম্ভাবনার বার্তা নতুন করে পৌঁছাবে। দেশের বাইরের ক্রেতাদের কাছেও দেশের স্বর্ণালংকারের পরিচিতি বাড়বে। এর ফলে উদ্যোক্তার সংখ্যা ও কর্মসংস্থান বাড়বে। অন্যদিকে যেসব দক্ষ কারিগর এই পেশা ছেড়ে গেছেন, তাঁরাও নতুন করে এই শিল্পে ফেরার সাহস পাবেন।

আইসিসিবির তিনটি হলে দেশ-বিদেশের ৬০টির মতো জুয়েলার্স প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছে। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য—ডায়মন্ড ওয়াল্ড, সিরাজ জুয়েলার্স, আমিন জুয়েলার্স, রিয়া জুয়েলার্স, জায়া গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ড, আপন জুয়েলার্স।
প্রদর্শনী উদ্বোধনের পর পুরো মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা যায় ক্রেতা-দর্শনার্থীর উপস্থিতি খুবই কম। অধিকাংশ স্টলেই কর্মীদের নিজেদের মধ্যে গল্পগুজব করে সময় কাটাতে দেখা যায়।

আমিন জুয়েলার্সের প্রধান পরিচলন কর্মকর্তা আবদুল মান্নান বলেন, প্রথমবার হিসেবে এই প্রদর্শনীতে আমাদের মূল লক্ষ্য হলো গ্রাহকদের কথা ও তাঁদের চাহিদাগুলো শোনা। এর মধ্য দিয়ে যে অভিজ্ঞতা হবে তা দিয়ে আগামী বছরে আরও ভালোভাবে ক্রেতাদের কাছে পৌঁছাতে পারব।

রাজধানীর মিরপুর থেকে প্রদর্শনী দেখতে এসেছেন ব্যাংক কর্মী রেহানা পারভীন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘একসঙ্গে অনেকগুলো স্টলে বিভিন্ন ধরনের স্বর্ণালংকার দেখার সুযোগ পাচ্ছি। আরও কিছু সময় দেখেশুনে কিছু অলংকার হয়তো কিনব। একসঙ্গে অনেক অলংকারের মধ্য থেকে দেখেশুনে কেনায় মনের ভেতরে সন্তুষ্টি থাকবে।

‘প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া ব্যবসায়ীদের প্রত্যেকে তাঁদের সেরা নকশা ও মানের অলংকার নিয়ে হাজির হয়েছেন। অন্যদিকে ক্রেতা ও দর্শনার্থীরাও এক স্থানে অনেক ধরনের অলংকার দেখার সুযোগ পাচ্ছেন। ব্র্যান্ডগুলো সম্পর্কে জানতে পারছেন।’

          দিলীপ কুমার আগরওয়ালা, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি

আয়োজকেরা জানান, মেলায় আসা দর্শনার্থীদের জন্য র‌্যাফল ড্রর মাধ্যমে থাকবে পুরস্কার। আগামী শনিবার পর্যান্ত সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে এ প্রদর্শনী।

জানতে চাইলে জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা প্রথম আলোকে বলেন, প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া ব্যবসায়ীদের প্রত্যেকে তাঁদের সেরা নকশা ও মানের অলংকার নিয়ে হাজির হয়েছেন। অন্যদিকে ক্রেতা ও দর্শনার্থীরাও এক স্থানে অনেক ধরনের অলংকার দেখার সুযোগ পাচ্ছেন। ব্র্যান্ডগুলো সম্পর্কে জানতে পারছেন। পাশাপাশি আমরা যে অনলাইনেও অলংকার বিক্রি করছি, সেটাও ক্রেতারা জানতে পারছেন।

 

Source : প্রথম আলো

Copyright © 2022 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.